ইচ্ছে ঘুড়ি

হাওয়ায় হাওয়ায় উড়িয়ে দিলাম মনের শত ইচ্ছে ঘুড়ি| সাত রঙের শত ঘুড়ি| ছেড়া সুতাই ভাসছে ঘুড়ি| নীল আকাশে হাওয়ার ভরে, খোঁজছে ঘুড়ি শেষ ঠিকানা| হাওয়ার ভরে ভাসছে ঘুড়ি, মনের শত ইচ্ছে ঘুড়ি| পাইনি তবু শেষ ঠিকান|

পথ

সে তো ছুটেই চলছে; আকাঁ-বাকাঁ ঐ ধূলিমাখা পথে| কখনো হাসি কখনো কান্নার; ব্যাস্ত জীবনের ছুটে চলা এ পথে| শত মায়া শত ভালবাসা মিশে থাকা ঐ পথে| ছুটেছি আমি স্বপ্ন পূরণের খুজেঁ| ছুটে ছুটে চলা ঐ আকাঁ-বাকাঁ পথের সীমানা কবু নাহি খুজে আমি পায়| চলছি ছুটে স্বপ্নের খুজে|

মুসাফির

কে ভাই আপনি? আমি মুসাফির অনেকে দূর থেকে এসেছি । আমাকে আপনি চিনবেন না । এক গ্লাস পানি দিবেন আমাকে আমার অনেক তৃষ্ণা পেয়েছে । ওহ্!এই নিন, তো আপনি কোথায় যাবেন?যাওয়ার মতো নিদিষ্ট কোন স্থান নেই তবে দেখা যাক যদি কোথাও পেয়ে যায় সেখানেই থাকব, আবার কিছু দিন পরে চলে যাব । কোথায় চলে যাবেন? আমার আসল ঠিকানা । আপনার […]

অলস দুপুর

অলস আমি, সময় ছুটছে আপন গতিতে । বসে আছি, বসে নেই সময় । মিনিট, ঘন্টা, দিন মাস চলছে । একই রেখায় চলছে….

শীতের সকাল

শীতের সকালের মিষ্টি রোদ বড় ভালো লাগে । কেউ বা পোহায় রাস্তার দ্বারে বসে । কেউ বা পোহায় ভিঠে জমিতে বসে । পাঁচ-ছয় জনের গোল আসরে অনেক কথাই জমে ।

অনুকাব্য-৩

যেখানে শূন্যতা ভরপুর সেখানেই আমি ছুটে চলছি । এ তো মিথ্যে আশায় ছুটে চলা । ভাবনার বন্দরে শুধুই অপূর্ণতা । ঝাঁকে ঝাঁকে এসে ভির জমায় ।

অনুকাব্য-২

ব্যথিত আত্মার; জ্যান্ত নীল বেদনা গুলো হার মানে । মরে মরে বেঁচে যাওয়া মানুষ গুলোর কাছে ।

অনুকাব্য-১

রোদেলা দুপুরে, এলো মেলো বাতাসে । উড়ছে আমার ইচ্ছে ঘুড়ি । চেয়ে দেখ আকাশ পানে ।

সোনালি সকাল

কুয়াশা, কুয়াশা হয়েছে তোমার বিদায় বেলা । ঐ দেখ পূর্ব দিগন্তে উঁকি দিচ্ছে সূয্যি মামা । একটি সোনালি সকাল নিয়ে । ঘাসের ডগার শিশির বিন্দুর ঝলকানো সোনালি আলোয় । শুরু হচ্ছে নব যাত্রা ।

ক্ষণিকের পথিক

ক্ষণিকের পথিক আমি, চলছি একা পথ । পথের মায়া ছিন্ন করে । যাব যে দিন আধাঁর ঘরে ক্ষমা করিও ভূবণ বাসী । করে ছিলেম যত ভুল ।