যুদ্ধজয়ের উপাখ্যান

যুদ্ধজয়ের উপাখ্যান ………………………………………………….. আসাদটা রুমের এক কোনায় কাতরাচ্ছে, গ্রেনেডের স্প্রিন্টারে ঝাঁঝরা হয়ে গেছে ওর পাটা, সর্বক্ষণ ই চাপা একটা গোঙানির আওয়াজ পাওয়া যায়, আমার অস্বস্তি হয় ।   আজ আটদিন হয়ে গেল, আমি আবার প্রস্তুত হই, আবার অপারেশন । আসাদের পায়ে পচন ধরে গেছে সম্ভব হলে আজ ই পাঠিয়ে দেয়া হবে ওপারে ।   পুরোপুরি প্রস্তুত হয়ে, আসাদের […]

ট্রেন (প্রথম কিস্তি)

রাঙা খালামনি বলেছে পুরুষ মানুষ দুই প্রকার । এক প্রকার মেয়েদের চোখে চোখ রেখে কথা বলে, আরেক প্রকার মেয়েদের বুকের দিকে তাকিয়ে কথা বলে । অন্বেষার সামনে বসে থাকা পুরুষ মানুষটি, তার চোখ বা বুক কোন দিকেই তাকিয়ে কথা বলছে নাহ । সে তাকিয়ে আছে, কফির মগের দিকে । সামনে বসা ভদ্রলোকের নাম, পপলু । কিন্তু এ নামে তাকে কেউ […]

অপেক্ষা

তুমি এসেছিলে, গ্রীষ্মের ভর দুপুরে, ক্লান্ত, শ্রান্ত, কতকটা বিষণ্ণ । বৈশাখী পাগলা হাওয়ায় কতকটা মাতাল ।   তুমি আবার এলে বর্ষায়, বৃষ্টিস্নাত, কাকভেজা হয়ে, যেই না তোমায় দেখলাম, আমি লজ্জায় চোখ বন্ধ করলাম । চোখ খুললাম, এ কি তুমি নেই । এথায় খুঁজি, ওথায় খুঁজি, কোথাও তুমি নেই । ভেবেছিলাম না বলা কথাটা বলবো, কিন্তু যেমন হুট করে এলে, ঠিক […]

একটি দুষ্টু কবিতা

আমার একটা নদী আছে, নদীটা একবার এদিকে বয়, আরেকবার ঐ দিকে, চঞ্চল এবং দুষ্টু ডিঙ্গি নৌকার ছলাৎ ছলাৎ । আমার একটা খোলা আকাশ আছে, আকাশটা অনেক বিশাল আর অনেক নীল, আকাশের সাথে দুষ্টু মেঘেদের অনেক ভাব, সারাদিন লুকোচুরি । আমার একটা খোলা মাঠ আছে, মাঠটা অনেকটা ঐরকম অথবা এইরকম, দুষ্টু বাতাস সবুজ ঘাসে চিমটি কাটে বারবার । আমার […]