ইচ্ছে ঘুড়ি

হাওয়ায় হাওয়ায় উড়িয়ে দিলাম মনের শত ইচ্ছে ঘুড়ি| সাত রঙের শত ঘুড়ি| ছেড়া সুতাই ভাসছে ঘুড়ি| নীল আকাশে হাওয়ার ভরে, খোঁজছে ঘুড়ি শেষ ঠিকানা| হাওয়ার ভরে ভাসছে ঘুড়ি, মনের শত ইচ্ছে ঘুড়ি| পাইনি তবু শেষ ঠিকান|

পথ

সে তো ছুটেই চলছে; আকাঁ-বাকাঁ ঐ ধূলিমাখা পথে| কখনো হাসি কখনো কান্নার; ব্যাস্ত জীবনের ছুটে চলা এ পথে| শত মায়া শত ভালবাসা মিশে থাকা ঐ পথে| ছুটেছি আমি স্বপ্ন পূরণের খুজেঁ| ছুটে ছুটে চলা ঐ আকাঁ-বাকাঁ পথের সীমানা কবু নাহি খুজে আমি পায়| চলছি ছুটে স্বপ্নের খুজে|

অলস দুপুর

অলস আমি, সময় ছুটছে আপন গতিতে । বসে আছি, বসে নেই সময় । মিনিট, ঘন্টা, দিন মাস চলছে । একই রেখায় চলছে….

শীতের সকাল

শীতের সকালের মিষ্টি রোদ বড় ভালো লাগে । কেউ বা পোহায় রাস্তার দ্বারে বসে । কেউ বা পোহায় ভিঠে জমিতে বসে । পাঁচ-ছয় জনের গোল আসরে অনেক কথাই জমে ।

সোনালি সকাল

কুয়াশা, কুয়াশা হয়েছে তোমার বিদায় বেলা । ঐ দেখ পূর্ব দিগন্তে উঁকি দিচ্ছে সূয্যি মামা । একটি সোনালি সকাল নিয়ে । ঘাসের ডগার শিশির বিন্দুর ঝলকানো সোনালি আলোয় । শুরু হচ্ছে নব যাত্রা ।

ক্ষণিকের পথিক

ক্ষণিকের পথিক আমি, চলছি একা পথ । পথের মায়া ছিন্ন করে । যাব যে দিন আধাঁর ঘরে ক্ষমা করিও ভূবণ বাসী । করে ছিলেম যত ভুল ।

পাহাড়

পাহাড় দেখবে পাহাড়, ছোট একটি পাহাড় । দূরে কোথাও যেতে হবে না । তোমার পাশেই খুঁজে দেখ প্রতিটি ব্যাথিত আত্মায়, পেয়ে যাবে । ছোট একটি পাহাড়, ব্যাথার পাহাড় ।

বিস্মৃতির মায়া – অনিরুদ্ধ বুলবুল

সময়ের চেতনা যদি অসময়ে বাজে, আর কারো বিরহকাল – অচৈতন্যের আবর্তে ভাসে? মানবীয় চেতনার ডানা ঝাপটায় প্রবল অস্থির পাখিরা তখন! কারো অভিমান বোবাকান্না – তুষের দহনে জ্বলে… আঁধারের বুকে শায়িত যামিনী, কিশলয় জেগে থাকে মনোমাঝে প্রতিভাত জীবনবৃক্ষের পাতা; পাতার সজীবতা – সে তো জীবনেরই বরাভয়, বিষণ্নতার প্রতীক মরা পাতা – মৃত্যুর প্রতিরূপ । সময় পরিক্রমায় দিনও […]

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নিয়ে চললে দেশ এগিয়ে যাবে।

বঙ্গবন্ধু, জাতির পিতা তুমি দেশের স্বার্থ রাখলে জীবনবাজি জীবন দিলে হায়েনাদের হাতে ক’জন পায় এমন মহিমান্বিত মৃত্যু! তোমার আদর্শ সামনে রেখে হতে চাই তোমারই মতো নির্ভয় অন্যায়-অবিচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়ে আমরাও হবো জয়ী । আমি হতে চাই তোমারই প্রতিচ্ছবি জীবনে সদাচার অক্ষুণ্ণ রেখে হতে চাই ত্যাগী । আমরা করেছি লড়াই ভাষার জন্য পতাকার জন্য মুক্তির জন্য মায়ের […]

অতীত তালপুকুর

সেদিন যেটি ছিল তালপুকুর । আজ তা হয়েছে খেলার মাঠ সেখানে সবুজ ঘাসের উপর খেলা করে প্রজাপতির দল আষাঢ়-শ্রাবণ মাস এলো তাই হয়ে ওঠে সাদা বকচর উত্তরে দুপুকুর পাড়হীন চাই ভরে ওঠে পানিতে থই থই ছায়াঘেরা কলা বাগানবাঁশের আড়ে বিকালের অবসরে প্রশান্তি আনে সন্ধাঘন পরিবেশে পাখির কিচির মিচি সকালের ঘাসফুলে শিশির চিকিমিকি ।