বরফ চড়ুই

তুষার চাদরে ঢাকা হল পৃথিবী ।
এরমাঝে ইতি উতি এদিক সেদিক
উড়াল দেয় কালচে চড়ুই,
এডাল থেকে সেডালে, চাল থেকে দেয়ালে ।
তুলতুলে সাদা ধবল তুষারে
আলতো করে বসে বরফপান করে
উতলা চড়ুই ।

চড়ুইয়ের ছুটোছুটিতে চঞ্চল হয়
মুষলধারে পরতে থাকা বরফের স্ফটিকদল,
তখন খানিক ভাবে —
তারপর আবারো ঝরতে থাকে;
একঘেয়ে ম্যাড়ম্যাড়ে বৃষ্টির মত,
ম্যাড়ম্যাড়ে বরফপাতও ।
সারাদিন, সকাল থেকে দুপুর, দুপুর থেকে বিকেল,
ঝরঝর মুষল বরফপাত
কখনো তিনঘেয়ে হয়ে যায় —
ডান থেক ঝরে, বাম থেকে ঝরে, ঝরে সোজাসুজি;
আর কখনো বরফের দল নাচে দিগ্বিদিক ॥

সাদা চাদরে ঢাকা গাছগুলোর, কোথা থেকে যেন
মনে এত্তগুলো রং লেগে যায় ।
সাদার সফেদ ভূবণে আরও অনেক ছন্দ খুঁজে পেতে
গাছগুলো দুলতে থাকে তিরতির করে;
যেন আবহমান কালের কোন ঐকতানে নাচছে গাছের দল ॥

জগৎটা ঢেকে দিল তুষারের ধবল কম্বল ॥

মন্তব্য করুন