একটি দুষ্টু কবিতা

আমার একটা নদী আছে,
নদীটা একবার এদিকে বয়, আরেকবার ঐ দিকে,
চঞ্চল এবং দুষ্টু ডিঙ্গি নৌকার ছলাৎ ছলাৎ ।

আমার একটা খোলা আকাশ আছে,
আকাশটা অনেক বিশাল আর অনেক নীল,
আকাশের সাথে দুষ্টু মেঘেদের অনেক ভাব,
সারাদিন লুকোচুরি ।

আমার একটা খোলা মাঠ আছে,
মাঠটা অনেকটা ঐরকম অথবা এইরকম,
দুষ্টু বাতাস সবুজ ঘাসে চিমটি কাটে বারবার ।

আমার একটা কুঁড়েঘর আছে,
কুঁড়েঘরটার দাপটে –
আশেপাশের সব প্রাসাদ ম্লান ;
রাতে দুষ্টু জ্যোৎস্না কুঁড়ের মেঝেতে আল্পনা আঁকে ।

আমার একটা পৃথিবী আছে,
পৃথিবীটা শুধু আমার এবং কিছু দুষ্টু বালকের
দুষ্টু রাজার রাজত্বে আমরা সবাই রাজ সভাসদ ।

একটি দুষ্টু কবিতা” সম্পর্কে ৫টি মন্তব্য

  1. ভালো লাগলো, কবিতার মধ্যে একটা সুন্দর রূপকল্প আঁকা আছে 😀
    ছোটবেলার দুষ্টুদুষ্টু স্বাধীন মজার দিনগুলোর কথা মনে পড়ল; হঠাৎ করে সেইসব দিনে আবার ফিরে যেতে ইচ্ছা করছে ^_^

মন্তব্য করুন